পড়াশোনা

সুভা গল্পের সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর 2022

আপনি যদি অনুসন্ধান করে থাকেন সুভা গল্পের সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর 2022 সম্পর্কে তবে এই গল্প থেকে ৫টির ও অধিক প্রশ্ন ও উত্তর পেতে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। আমাদের সাইটে আপনাদের পাঠ্যবইয়ের এবং বিগত সালের বোর্ড পরীক্ষায় আসা সব প্রশ্নোত্তর ও সমাধান পাবেন।

সুভা গল্পের সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

সৃজনশীল প্রশ্ন ১

মেয়েটির নাম আঁখি। চোখে না দেখলেও বিশেষ যন্ত্রের সাহায্যে পড়াশােনা চালিয়ে যায়। বন্ধুদের অন্যতম তিতু’ জন্মদিনের উপহার হিসেবে আঁখিকে একটি ঝুনঝুন বল উপহার দেয়। এই বলের সাহায্যে ক্রিকেট খেলার ছক্কা মেরে আঁখি তার দলকে বিজয় এনে দেয়।

ক. সুভা দুই বাহুতে কাকে ধরে রাখতে চায়? খ. সুভা পিতামাতার মনে সর্বদাই জাগরূক ছিল কেন? বুঝিয়ে দাও। গ. উদ্দীপকে ‘সুভা’ গল্পের যে বিশেষ দিকের প্রতিফলন ঘটেছে তা ব্যাখ্যা কর। ঘ. “সুভা’ গল্পের ‘প্রতাপ’ যদি উদ্দীপকের তিতু’ হতাে, তাহলে সুভা’ গল্পের পরিণতি অন্য রকম হতে পারত।”- উক্তিটি বিশ্লেষণ কর।

ইতিমধ্যে আপনি সুভা গল্পের সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর 2022 থেকে ৪ খন্ডে বিভক্ত সৃজনশীল প্রশ্নটি দেখে নিয়েছেন। চলুন তবে এবার উত্তর দেখে নেওয়া যাক।

১ নম্বর সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর

ক উত্তরঃ সুভা দুই বাহুতে প্রকাণ্ড মূক মানবতাকে ধরে রাখতে চায়।

খ উত্তরঃ জন্ম থেকে কথা বলতে না পারার কারণে সুভা পিতা-মাতার মনে সর্বদাই জাগরুক ছিল। | ‘সুভা’ গল্পের কেন্দ্রীয় চরিত্র সুভা। সে জন্মগতভাবেই বােবা। সে বিধাতার অভিশাপরূপে জন্মেছে বলে নিজেকে আড়াল করে রাখত এবং কষ্ট পেত। তার মা তাকে নিজের গর্ভের কলঙ্ক বলে মনে করত। সুভার কথা বলতে না পারার বেদনা তার বাবা-মা কখনই ভুলতে পারত না। তাই সুভা সর্বদাই পিতা-মাতার মনে জাগরূক ছিল।

সারকথা : কথা বলতে না পারায় সুভাকে তার বয়সী ছেলে-মেয়েরা ভুললেও তার বাবা-মায়ের মনে সর্বদা জাগরূক ছিল। গ উত্তরঃ উদ্দীপকে ‘সুভা’ গল্পের সুভার শারীরিক প্রতিবন্ধিতার প্রতিফলন ঘটেছে। • শারীরিক সীমাবদ্ধতা বা প্রতিবন্ধিতা ব্যক্তির ইচ্ছ-অনিচ্ছার ওপর নির্ভর করে না। প্রতিবন্ধী বা বিশেষ চাহিদাসম্পন্নদের সঙ্গে স্বাভাবিক আচরণ না করলে তাদেরকে মানসিক যন্ত্রণা থেকে মুক্ত করা সহজ নয়। ‘সুভা’ গল্পের সুভা জন্মগতভাবেই বােবা। কথা বলতে পারে না বলে সে নিজেকে স্রষ্টার অভিশাপ মানে করত। এজন্য সে নিজেকে সব সময় আড়াল করে রাখত। তবুও কথা বলতে না পারার কষ্ট সে কখনাে ভুলতে পারত না। কারণ তার মাও তাকে গর্ভের কলঙ্ক মনে করত। অন্যদিকে উদ্দীপকের আঁখিও চোখে দেখতে পায় না। তাই বলে সে থেমে থাকেনি। সে যন্ত্রের সাহায্য নিয়ে তার পড়াশােনা চালিয়ে যায়। বন্ধুর দেওয়া একটি ঝুনঝুন বল দিয়ে সে খেলতে শেখে, এক সময় সে ক্রিকেট খেলায় ছক্কা মেরে দলকে জয় এনে দেয়।

সারকথা : শারীরিক প্রতিবন্ধিতা থাকা সত্ত্বেও পরিবার ও সমাজ থেকে সাহায্য পেলে মানুষ সফল হতে পারে। উদ্দীপকে তার প্রতিফলন ঘটেছে।

ঘ উত্তরঃ ‘সুভা’ গল্পের প্রতাপ যদি উদ্দীপকের তিতু হতাে, তাহলে ‘সুভা’ গল্পের পরিণতি অন্য রকম হতে পারত- মন্তব্যটি যথার্থ। আমাদের সমাজে প্রতিবন্ধি বা বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন মানুষের প্রতি সাধারণত স্বাভাবিক আচরণ করা হয় না। তাদেরকে অবহেলা করা হয়। শারীরিক সীমাবদ্ধতা সব সময় সাফল্যের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায় না। যথার্থ সহায়তা ও আন্তরিকতাপূর্ণ আচরণ পেলে তারাও সফল মানুষ হতে পারে।

উদ্দীপকের আঁখি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হওয়া সত্ত্বেও বন্ধু তিতুর সহায়তায় সে সফল হয়েছে। সে যন্ত্রের সাহায্যে তার পড়াশােনা চালিয়ে গেছে। তিতুর দেওয়া একটি ঝুনঝুন বল দিয়ে ক্রিকেট অনুশীলন করে সে ছক্কা মেরে তার দলকে জিতিয়েছে। অন্যদিকে ‘সুভা’ গল্পের সুভা সেই সুযােগ পায়নি। তার পরিবার সমাজ কারও কাছ থেকেই সহানুভূতি পায়নি। এমনকি তার মা ও তাকে গর্ভের কলঙ্ক মনে করেছে।

এই গ্রামের ভবঘুরে ছেলে প্রতাপই শুধু তার সাথে মিশেছে। উদ্দীপকের তিতুর মতাে প্রতাপ সুভাকে সাহায্য করেনি। তাই বলা যায় প্রতাপ যদি উদ্দীপকের তিতুর মতাে হতাে তা হলে গল্পের পরিণতি ভিন্ন হতাে। ‘সুভা’ গল্পে প্রতিবন্ধিতার কারণে সুভাকে কেউ সহজভাবে গ্রহণ করেনি। প্রতাপ তাকে ‘সু’ বলে ডাকত কেবল ছিপ ফেলে মাছ ধরার সময় একজন নির্বাক সঙ্গী প্রয়ােজন মনে করে। অন্যদিকে উদ্দীপকের আঁখিকে তার বন্ধু তিতু সহায়তা করেছে। সে সুযােগ পেয়ে তার যােগ্যতার প্রমাণ দিয়েছে। এসব দিক বিচারে তাই বলা যায়, প্রশ্নোক্ত মন্তব্যটি যথার্থ।

সারকথা : আন্তরিক সহায়তা ও সমর্থন পেলে বিশেষ চাহিদা সম্পন্নরা সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে উঠতে পারে।

ধন্যবাদ আপনার অনুসন্ধানের জন্য এবং আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করার জন্য। আশাকরি উক্ত পোষ্ট পড়ার মাধ্যমে আপনি সুভা গল্পের সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর 2022 সম্পক্তি সঠিক তথ্য খুঁজে পেতে সক্ষম হয়েছেন। সুভা গল্পের বাকী সৃজনশীর প্রশ্নের উত্তর সমূহ আপনি খুঁজে পাবেন এখানে । আপনার সুবিধার্থে আমি নিম্নে রেফারেল সহ দিয়ে দিচ্ছি। সরাসরি নিম্নের লিঙ্কে চেপে পড়ে আসুন। [button color=”primary” size=”big” link=”https://toptechcare.com/subah-golper-srijonshil/” icon=”” target=”true” nofollow=”false”]ভিজিট করুন[/button]

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button