ব্লগিং

মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম ২০২২

বর্তমান সময়ে আমরা যারা মোবাইল ব্যবহার করি। তারা বেশ ভালো করে জানি যে, একটি মোবাইলের জন্য ব্যাটারি কতটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। কারণ এটি ব্যাটারী তে যতক্ষণ পর্যন্ত চার্জ থাকে, ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা উক্ত মোবাইল গুলো ব্যবহার করতে পারি। তবে এই মোবাইল এর মধ্যে থাকা ব্যাটারি তে চার্জ দেওয়ার বেশ কিছু নিয়ম রয়েছে। যেগুলো একজন মোবাইল ইউজার হিসেবে আমাদের সবার জেনে নেওয়া উচিত। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, আমাদের মধ্যে অধিকাংশ মানুষ এই নিয়ম গুলো সঠিক ভাবে অনুসরণ করে না। যার ফলে একটি নতুন মোবাইল কেনার পরবর্তী এক বছরের মধ্যেই। সেই মোবাইলের ভেতরে থাকা ব্যাটারির সমস্যা দেখা যায়। আর আপনি যদি মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম ২০২২ গুলো জানেন। তাহলে আপনার মোবাইলে থাকা ব্যাটারির ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা অনেক অংশেই কমে যাবে।

মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম ২০২২

তো আজকের আলোচনায় আমি মূলত এই বিষয় গুলো নিয়ে বিস্তারিত বলার চেষ্টা করব। কারণ একজন মোবাইল ব্যবহারকারী যেন মোবাইল চার্জের নিয়ম গুলো সম্পর্কে জানতে পারে। সেজন্য আমি আজকে মোবাইল চার্জ দেওয়ার সকল নিয়ম গুলো কে ধাপে ধাপে আলোচনা করার করব। আর আপনি যদি আজকের এই আলোচনা গুলো সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনাকে মনোযোগ দিয়ে পুরো লেখা টি পড়তে হবে। যদি আপনি এই লেখা টি মনোযোগ দিয়ে পড়ে থাকেন। তাহলে আমার দীর্ঘ বিশ্বাস যে। এরপর থেকে আপনিও মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম গুলো সম্পর্কে অবগত থাকবেন।

নির্ধারিত সময়ে মোবাইল চার্জ দিবেন

এখন যদি আপনাকে প্রশ্ন করা যায় যে, মোবাইল চার্জ দেয়ার সঠিক সময় কোনটি। তাহলে কি আপনি এই প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবেন। না আপনাদের মধ্যে এমন অনেকে আছেন, যারা মূলত এই প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিতে পারবে না। তবে এর উত্তরে আমি আপনাকে বলব যে। আপনার তখনই মোবাইল চার্জ দেয়া উচিত। যখন আপনার মোবাইলের চার্জ ৫০% এর কম হবে। কিন্তু আমরা অনেকে আছি, যারা মোবাইলের চার্জ ৭০% থেকে ৮০% এর মধ্যে আসলেই পুনরায় আবার চার্জে লাগিয়ে দেই। কিন্তু এমনটা করা একেবারেই উচিত নয়। বরং আপনার মোবাইলের চার্জ যখন 50% এর নিচে আসবে। তখন আপনি আপনার সেই মোবাইল টি চার্জে লাগিয়ে দিবেন।

মোবাইলের চার্জ কত পারসেন্ট (%) রাখা উচিত

মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম ২০২২ এর মধ্যে এই প্রসেস টা হলো অন্যতম। আমরা অধিকাংশ সময় আমাদের মোবাইলে থাকা ব্যাটারির চার্জ ১০০% করি। তবে আপনি জানলে অবাক হয়ে যাবেন। কারণ আমাদের মোবাইলের মধ্যে থাকা ব্যাটারির চার্জ কখনোই ১০০% করা ঠিক না। বরং একটি মোবাইল যখন চার্জিং এর মধ্যে থাকে। তখন ৯০ থেকে ৯৫% হওয়ার সাথে সাথেই সেই মোবাইল টি চার্জিং থেকে খুলে নেওয়া উচিত। এতে করে মোবাইলের ভেতরে থাকা ব্যাটারীর হেলথ অনেক ভালো থাকবে। সেই সাথে আমাদের অনেকের একটা বদ অভ্যাস আছে। সেটি হল যে, মোবাইলের চার্জ একটু কমে যাওয়ার সাথে সাথেই আবার ফুল চার্জ করে নেই। আর আপনি যদি এই কাজ টি বারং বার করতে থাকেন। তাহলে আপনি নিজেই আপনার মোবাইলের ব্যাটারির অনেক বড় ক্ষতি করে ফেলছেন।

মোবাইলের চার্জ কত পারসেন্ট (%) হলে ব্যবহার করা ঠিক না

যখন আমরা মোবাইল ব্যবহার করি তখন আমরা মোবাইলে চার্জ কত পারসেন্ট আছে। তার ওপর কোন প্রকারের গুরুত্ব দেই না। বরং আমরা নিজের মতো করে সেই মোবাইল টি ব্যবহার করতে থাকি। আর একটা সময় দেখা যায় যে ইউটিউবে ভিডিও দেখা কিংবা ফেসবুকে ভিডিও দেখার সময় যখন মোবাইলের চার্জ লো সিগন্যাল দেয়। তারপরও আমরা আমাদের মত করে সেই মোবাইল টি ব্যবহার করতে থাকি। মূলত আপনি যদি এমনটা করে থাকেন। তাহলে আপনি আপনার মোবাইলের ব্যাটারির অনেক বড় ক্ষতি করে ফেলছেন। বরং যখন আপনার মোবাইলের ব্যাটারি লো সিগনাল দিবে। তাৎক্ষণিক ভাবে আপনাকে মোবাইল ব্যবহার করা বন্ধ করে দিতে হবে। এবং সাথে সাথেই আপনাকে আপনার মোবাইল টি চার্জে লাগাতে হবে। এতে করে আপনার মোবাইলে থাকা ব্যাটারির উপর চাপ অনেকটা কম পড়বে।

প্রিয় পাঠক আপনি এই আর্টিকেলে মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম ২০২২ সম্পর্কে পড়ছেন। আশাকরি এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনি উপকৃত হবেন। চলুন বাকী অংশ পড়ে শেষ করা যাক। 

মোবাইল চার্জিং এ থাকা অবস্থায় ব্যবহার করা বিরত রাখুন

বর্তমান সময়ে আমরা মোবাইলের প্রতি এতটাই আসক্ত হয়ে পড়েছি যে। মোবাইলের মধ্যে যখন চার্জ থাকে না তখন আমরা চার্জিং এ থাকা অবস্থায় ব্যবহার করি। তো আপনি যদি এমনটা করে থাকেন। তাহলে ধরে নিন যে আপনি আপনার মোবাইলের মধ্যে থাকা ব্যাটারির আয়ু অনেকটাই কমিয়ে ফেলেছেন। এর পাশাপাশি আপনি এমন অনেক নিউজে দেখতে পারবেন যে। মোবাইল বিস্ফোরণ হওয়ার খবর শোনা যায়। মূলত এটা হওয়ার মূল কারণ হলো মোবাইল চার্জিং এ থাকা অবস্থায় মোবাইল ব্যবহার করা। 

কারণ যখন একটি মোবাইল চার্জিং অবস্থায় থাকে। তখন সেই মোবাইলের মধ্যে থাকা ডিসপ্লে, প্রসেসর এবং অন্যান্য যন্ত্রপাতি থেকে পাওয়ার ব্যবহার করা হয়ে থাকে। যার ফলে চার্জিং এ থাকা অবস্থায় একটি মোবাইল অনেক গরম হয়। আর আপনি যদি সেই মুহূর্তে পুনরায় মোবাইল টি ব্যবহার করেন। সে ক্ষেত্রে আপনার মোবাইলের অনেক বড় ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।

ভারী অ্যাপস ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন

একটা বিষয় আপনি চিন্তা করে দেখুন, বর্তমান সময়ে আপনার মোবাইলে মোট কত গুলো অ্যাপস ইনস্টল করা আছে। হয়তোবা যদি আপনি এই বিষয়টি লক্ষ্য করেন। তাহলে দেখতে পারবেন যে, আপনার ফোনে ইতি মধ্যেই অনেক গুলো অ্যাপস ইনস্টল করা আছে। মূলত আমরা আমাদের প্রয়োজনে এইসব এপ্স গুলোকে ফোনে ইন্সটল করে রাখি। কিন্তু কখনো কি আপনি ভেবে দেখেছেন যে এইসব এপ্স গুলোর কারণে আপনার ফোনের ব্যাটারির উপর কি পরিমানে চাপ পড়ে। দেখুন আমাদের ফোনে ব্যবহার করা এমন অনেক অ্যাপস রয়েছে। যে গুলো তুলনামূলক ভাবে অনেক ভারী অ্যাপস হিসেবে পরিচিত। আর আপনি যদি ক্রমাগত ভাবে এই ধরনের ভারী অ্যাপস এর সংখ্যা আরো বেশি করেন। সে ক্ষেত্রে কিন্তু আপনি আপনার ব্যাটারির উপর অনেক বড় ক্ষতি করে ফেলবেন।

সারারাত মোবাইল চার্জে রাখবেন না

এবার আপনি একটা সাধারণ বিষয় চিন্তা করে দেখুন। মনে করুন আপনার ক্ষুধা লেগেছে, এখন আপনি কতটুকু খাবার গ্রহণ করতে পারবেন। নিশ্চয়ই আপনার যে পরিমাণ ক্ষুধা লেগেছে, সেই ক্ষুদা নিবারণ করার জন্য যতটুকু খাবার এর প্রয়োজন হয় আপনি ততটুকুই খাবেন, তাই না! ঠিক তেমনি ভাবে এবার আপনি একটি মোবাইলের ব্যাটারির কথা চিন্তা করে দেখুন। একটি মোবাইলের ব্যাটারি কতক্ষণ পর্যন্ত চার্জিং এর মধ্যে লাগিয়ে রাখা উচিত। যতক্ষণ সেই মোবাইলের ব্যাটারি ফুল চার্জ হবে ততক্ষণ পর্যন্ত চার্জিংয়ে লাগা উচিত, তাই না। 

কিন্তু আমাদের মধ্যে এমন অনেক ব্যক্তি আছেন। যারা মূলত ঘন্টার পর ঘন্টা মোবাইল চার্জিং লাগিয়ে রাখেন। আবার অনেকেই দেখা যায় যে রাতে মোবাইল চার্জে দিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। বিষয়টা একবারই সমীচীন নয়। যদি আপনি এমনটা করে থাকেন। তাহলে আপনি আপনার মোবাইলের ব্যাটারি হেলথ অনেক নষ্ট করে ফেলবেন।

আমাদের শেষ কথা

প্রিয় পাঠক, আজকের আলোচনায় আমি আপনাকে মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম গুলো জানিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছি। যদি আপনি আজকের আলোচনা টি মনোযোগ দিয়ে পড়ে থাকেন। তাহলে আমার দীর্ঘ বিশ্বাস যে, এতক্ষণে আপনার মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম গুলো সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা চলে এসেছে। আর আপনি যদি এই ধরনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলো সহজ ভাষায় জেনে নিতে চান। তাহলে অবশ্যই আমাদের সাথে থাকবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button